Home আকাশলীনা পত্রিকার মাধ্যমে প্রচারণা পেলে ভালোই লাগে – নরেশ ভূঁইয়া

পত্রিকার মাধ্যমে প্রচারণা পেলে ভালোই লাগে – নরেশ ভূঁইয়া

1027
0
SHARE

অভিনেতা, নাট্যনির্দেশক, লেখক এই তিন পরিচয়েই পরিচিত নরেশ ভূঁইয়া। একসময় সাংবাদিকতার সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন। প্রায় ৪০ বছর তিনি সাংবাদিকতা করেছেন। আনন্দভুবনের এবারের সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে থাকছেন নরেশ ভূঁইয়া…

আনন্দভুবন : কেমন আছেন ?

নরেশ ভূঁইয়া : এই তো আছি। চলে যাচ্ছে [হাসি]

আনন্দভুবন : সাম্প্রতিক ব্যস্ততা কী নিয়ে চলছে ?

নরেশ ভূঁইয়া : ‘রেগে গেলেন তো হেরে গেলেন’ নামে একটি নাটকের নির্দেশনা দিয়েছি। নাটকটি এটিএন বাংলায় প্রচার হওয়ার কথা। বিভিন্ন ধারাবাহিক এবং খÐ নাটকেও অভিনয় করছি।

আনন্দভুবন : সম্প্রতি কোনো বই পড়েছেন কি ?

নরেশ ভূঁইয়া : আমার বন্ধু শামীম আজাদের লেখা ‘বংশবীজ’ বইটি পড়েছি। বইটি আত্মজীবনী ধরনের। তবে এখানে লেখকের জীবনের পাশাপাশি সে সময়ের সমাজ-সংস্কৃতির চিত্রও ফুটে উঠেছে। সব মিলিয়ে ভালো লেগেছে বইটি।

আনন্দভুবন : প্রিয় লেখক ?

নরেশ ভূঁইয়া : সুনির্দিষ্টভাবে একজনের নাম বলা যায় না। একেক সময় একেকজনের লেখা ভালো লাগে।

আনন্দভুবন : গানশোনা হয় ?

নরেশ ভূঁইয়া : গান  শুনি, তবে খুব কম।

আনন্দভুবন : বর্ষাকাল কেমন উপভোগ করছেন ?

নরেশ ভূঁইয়া : আমরা যারা আটপৌরে জীবন-যাপন করি, অর্থাৎ যাদেরকে কাজের জন্য প্রতিনিয়ত বাইরে বের হতে হয় তাদের জন্য বৃষ্টি ভোগান্তির বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। ঢাকা শহরে এখন একটু বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা হয়। চলাচল করা যায় না। ঘরে বসে থাকলে তখন বৃষ্টি উপভোগ করা যায়। আবার টিনের চালে বৃষ্টির শব্দ শুনতে ভালো লাগে।

আনন্দভুবন : সম্প্রতি কোনো সিনেমা দেখেছেন কি ?

নরেশ ভূঁইয়া : ‘পোড়ামন-২’ সিনেমাটি দেখলাম। আমি যে ধারণা নিয়ে ছবিটি দেখতে গিয়েছিলাম তার সঙ্গে মেলেনি। চলচ্চিত্রটি আমার ধারণার চেয়ে ভালো হয়েছে। বাণিজ্যিক ঘরানার ছবি হলেও কাহিনি, অভিনয়শিল্পীদের অভিনয় ভালো লেগেছে।

আনন্দভুবন : কোথায় ঘুরতে যেতে ভালো লাগে ?

নরেশ ভূঁইয়া : দেশের মধ্যে পাহাড়ি এলাকা ভালো লাগে। দেশের বাইরে সিঙ্গাপুর আমার প্রিয়। সেখানে আমার ছেলে, ছেলের বউও থাকে। সিঙ্গাপুরের আইনকানুন, পরিবেশ সব কিছু চমৎকার। তাই সিঙ্গাপুর আমার পছন্দের জায়গা।

আনন্দভুবন : ব্যস্তজীবনে অবসর কেমন মেলে ?

নরেশ ভূঁইয়া : কাজ না থাকলে তো অবসর থাকেই। অবসর পেলে ফেসবুকে সময় কাটাই।

আনন্দভুবন : পত্রিকার জন্য সাক্ষাৎকার দিতে কেমন লাগে ?

নরেশ ভূঁইয়া : পত্রিকার মাধ্যমে প্রচারণা পেলে ভালোই লাগে। তবে কমন প্রশ্ন হলে উত্তর দিতে অস্বস্তি লাগে। আমি নিজেও প্রায় ৪০ বছর সাংবাদিকতা করেছি।

আনন্দভুবন : কী স্বপ্ন দেখেন ?

নরেশ ভূঁইয়া : আমার দ্বারা কেউ যেন কোনো কষ্ট না পায়, বিব্রত না হয়, সবসময় এটাই চাই।

আনন্দভুবন : আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

নরেশ ভূঁইয়া : আনন্দভুবনকেও ধন্যবাদ। হ

সাক্ষাৎকার : তৃষা আক্তার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here